East Bengal

আই লিগ জয়ের আশা জিয়িয়ে রাখলো ইস্টবেঙ্গল

আজ আই লিগ এর গুরুত্ব পূর্ণ খেলায় ইস্টবেঙ্গল মুখোমুখি হয়েছিল রিয়েল কাশ্মীরের|
খেলাটি ছিল কাশ্মীরের হোম ম্যাচ| কিন্তু বর্তমান কাশ্মীরের পরিস্থিতির জন্যে খেলাটি স্থানন্তরিত হয়| দিল্লি তে আয়োজিত হয় খেলাটি|
সেই খেলায় আজ ইস্ট বেঙ্গল ২-১ গোলে পরাজিত করে কাশ্মীরকে |
ইস্ট বেঙ্গলের হয়ে গোল দুটি করেন এনরিকে এস্কোয়েদা ও জেমি সান্তোস| কাশ্মীরের হয়ে পেনাল্টি থেকে গোল করেন আরোন |

খেলার শুরু থেকে দাপট ছিল ইস্ট বেঙ্গলের|

খেলার প্রথম লগ্ন থেকেই |
ইস্ট বেঙ্গল নিজেদের আয়ত্তে খেলাটিকে পরিচালনা করতে থাকে|
নিজেদের মধ্যে নিখুঁত পাস খেলে ইস্টবেঙ্গল | বার বার কাশ্মীরের রক্ষণকে বিব্রত করতে থাকে |

প্রথম গোল|

এরকমই এক পরিস্থিতিতে দান প্রান্ত থেকে উঠে এনরিকে কে এক নিখুঁত ক্রস বাড়ান দানমুইয়া| খেলার বয়েস তখন ২০ মিনিট| নিখুঁত হেডে গোল করতে ভুল করে নি এনরিকে|

এনরিকের ৮ নম্বর গোল হয়ে গেলো এই মরসুমে|

চোটের জন্যে প্রায় ২ মাস মাঠের বাইরে না থাকলে আরো বেশি গোল করতে পারতেন এই স্প্যানিশ ফরওয়ার্ড|

Enrique Esqueda
Enrique Esqueda

এর পর কাশ্মীর আক্রমণে আসার চেষ্টা করে|
কিন্তু ইস্ট বেঙ্গলের জমাট রক্ষণ ও মাঝমাঠে|
দাঁত ফোটাতে পারেনি কাশ্মীর| নিজেদের মধ্যে বেশি করে পাস খেলে ইস্টবেঙ্গল| কাশ্মীরের খেলোয়াড় দের ধার্যচ্যুত ঘটান ইস্টবেঙ্গলের খেলোয়াড় রা|

লাল কার্ড|

এরকমই এক পরিস্থিতে একটা বল তাড়া করে বা প্রান্ত ধরে উঠতে চেষ্টা করেন কাশ্মীরের কফি|
ইস্টবেঙ্গলের বিশ্বকাপার নিখুঁত দক্ষতায় বল টি আড়াল করেন|
বলটি না পেয়ে প্রথমে হাত চালান কফি|
রেফারি ছুতে গিয়ে হলুদ কার্ড দেখান|
কবি তাতে রাগ প্রকাশ করলে তাকে লাল কার্ড দেখান রেফারি| খেলার বয়েস তখন ২৮ মিনিট|

দ্বিতীয় গোল|

এর ঠিক পরেই জেমি সান্তোস ও এনরিকে নিজেদের মধ্যে বল নিয়ে বিপক্ষের বক্সে ঢুকে পরে|
এনরিকের ক্রস থেকে গোল করেন সান্তোস|

Jaime Santos
Jaime Santos

ঠিক একই ভাবে আর একবার সুযোগ এসেছিলো সান্তোস এর কাছে| তবে তিনি বলটি গোলে রাখতে বার্থ হন|

দ্বিতীয় অর্ধ|

দ্বিতীয় অর্ধে কাশ্মীর খেলায় ফিরে আসে কিছুটা|
কাশ্মীর নিজেদের বাং দিকের সায়ীদ ব্যাক কে বিসর্জন দিয়ে দান প্রান্ত থেকে খেলা তৈরী করতে চেষ্টা করে|
বার বার আক্রমণে উঠে আসে কাশ্মীর| তবে জনি আকোস্তা বোরহা ও কাসিম বার বার পরিস্থিতির সামাল দেন|

জনি আকোস্তা

আগের দিনে জনির অভাব বার বার বোঝা গেছে|
রক্ষণ করে নিচ থেকে আক্রমণের শুরু তা তিনিই করেন| আজ আবার নিজের স্বমহিমায় খেলেন জনি|

Johnny Acosta
Johnny Acosta

কাশ্মীরের গোল |

খেলার ৬৭ মিনিটে একটি নির্বিষ বল নিয়ে ইস্ট বেঙ্গল বক্সে উঠে আসেন বাজো|
জনি তাকে কভার করে গোলরক্ষক দাগের এর জন্যে বাল টি ছেড়ে দেন |
কিন্তু দাগের বলের বদলে বাজার গায়ে ঝাঁপ দিলে ব্যাবধান কমায় কাশ্মীর|
এর পর ডাগর বেশ কিছু ভুল করে ইস্ট বেঙ্গল সমর্থক দের জন্যে আতঙ্কের সৃষ্টি করেন|

খেলার শেষ মুহূর্ত|

কোচ সান্তোস এর পরিবর্তে টনি দোভালে কে নামান|
টনি বল ধরে নিজেদের মধ্যে খেলার চেষ্টা করেন|
কিন্তু খেলার শেষ দিকে ইস্ট বেঙ্গল এর খেলোয়ার তা আতঙ্কিত হয়ে পরে ভুল পাস করতে থাকেন|
এরকম এক পরিস্থিতে তে কাসিম ও গোলরক্ষকের ভুল বোঝাবুঝি তে গোল পেতে পারতো কাশ্মীর|
ইস্টবেঙ্গল কোচ কাসিম কে তুলে সালাম কে নাবান| আর অবশেষে কিছু আতঙ্কিত মুহূর্তের পর জয় পায় ইস্ট বেঙ্গল|

হিরো অফ দা ম্যাচ|

গোল করে ও করিয়ে খেলার সেরা হন এনরিকে|

আই লিগ এর পরিস্থিতি|

এই জয়ের পর ইস্ট বেঙ্গল পৌঁছে গেল ১৮ খেলায় ৩৬ পয়েন্টে|
সমসংখক খেলায় চেন্নাই এর পয়েন্ট ৪০|
দুটো দলেরই বাকি আর ২ করে খেলা| চেন্নাই এর খেলা কাল চার্চিলের সাথে|
বাকি খেলা টি মিনার্ভা পাঞ্জাবের সাথে|
ইস্ট বেঙ্গলের শেষ ২ খেলা মিনার্ভা ও গোকুলামের সাথে|
চেন্নাই আর ২ পয়েন্ট পেলেই আই লিগ খেতাব জয় করবে|
সেই ক্ষেত্রে ইস্ট বেঙ্গল পরের ২ খেলা জিতলেও হেড টু হেডের বিচারে চেন্নাই লীগ খেতাব জিতবে|

এরকম পরিস্থিতে কালকে চেন্নাই চার্চিল খেলার উপর নজর থাকবে ভারতীয় ফুটবল প্রেমীদের|

7 months ago

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *